যুক্তরাষ্ট্র আন্তর্জাতিক ন্যায়বিচারের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছে: চীন!

1279

যুক্তরাষ্ট্র আন্তর্জাতিক ন্যায়বিচারের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছেইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংঘাত বন্ধে উদ্যোগ নিতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে চীন। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং য়ি এ আহ্বান জানিয়েছেন। গত কয়েকদিন ধরে ফিলিস্তিনে ইসরায়েলি হামলায় ১৪৯ জন প্রাণ হারিয়েছে এবং প্রায় ৯৫০ জন আহত হয়েছে। ইসরায়েলে পাল্টা রকেট হামলা চালাচ্ছে ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাপন্থী সংগঠন হামাসও। এ সংঘাতে ইসরায়েলের প্রতি পূর্ণ সমর্থন ব্যক্ত করেছে নিরাপত্তা পরিষদের সবচেয়ে প্রভাবশালী দেশ যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, ইসরায়েলের আত্মরক্ষার অধিকার আছে।

জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য দেশ ৫টি। এগুলো হলো যুক্তরাষ্ট্র, চীন, ব্রিটেন, ফ্রান্স ও রাশিয়া। এ ৫টির একটি সদস্য ভেটো দিলেই যেকোনো প্রস্তাব নাকচ হয়ে যায়। যুক্তরাষ্ট্র ইসরায়েলের প্রতি সমর্থন দেওয়ায় এককভাবে কোনো সিদ্ধান্তে আসতে পারছে না জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ।

ফিলিস্তিন-ইসরায়েল সংঘাত ইস্যুতে জাতিসংঘে এরইমধ্যে মধ্যে বৈঠক হয়েছে। তবে কোনো ঐকমত্যে পৌঁছানো যায়নি।পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনাকালে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং য়ি বলেছেন, নিরাপত্তা পরিষদ এখনো ঐকমত্যে পৌঁছাতে পারেনি। কারণ যুক্তরাষ্ট্র আন্তর্জাতিক ন্যায়বিচারের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছে।

সূত্র : আল জাজিরা

নামাজ পড়ার অপরাধে চাকরি ও কাজ থেকে বিতাড়িত আরএফএল

আমি মারুফ খান, আরএফএল বেস্ট বাই, হবিগঞ্জ সদর শোরুমের একজন সেলস্ এক্সিকিউটিভ।
আমি একজন মুসলমান! নামাজ আদায় করা আমাদের ইসলাম ধর্মে প্রত্যেকের জন্য ফরয। আর সেই ফরয নামাজ (পবিত্র জুম্মার নামাজ) পড়তে যাবার অপরাধে আজ আমাকে শোরুম থেকে বের করে দেয়া হয়েছে।

আজান পরার পর আরএফএল বেস্ট বাই শোরুম, আমাদের হবিগঞ্জ সদরের শোরুম ম্যানেজারকে ফোন দেই কিন্তু উনি ফোন না ধরে কেটে দেন। উনি ফোন ধরবেন কিভাবে উনি তো প্রতিদিনের ন্যায় কাজ ছেড়ে বাহিরে গিয়ে আরাম করছিলেন। উনি ফোন না ধরাতে আমি কাপড় বদলিয়ে আমরা ৩জন শোরুম বন্ধ করে মসজিদে চলে যাই। ঠিক ঐ মূহুর্তে ম্যানেজার আমাকে ফোন দিয়ে বলেন যে, আমি কার অনুমতি নিয়ে শোরুম বন্ধ করছি, সে আমাকে বলে যে আমি চাকরি করতে চাই না নামাজ পড়তে চাই?

আমি তখন বললাম স্যার চাকরি করি বলে কি আমাকে নামাজ ছেড়ে দিতে হবে? উনি আমাকে ঐ কথা শুনে হুমকি দেন যে আমাকে ঘাড় ধরে শোরুম থেকে বের করে দিবেন এবং আমাকে চাকরি থেকেও বের করে দিবেন।ঐ মূহুর্তে আমি নামাজ না পড়ে মসজিদ থেকে চলে আসি এবং আইসা শোরুম খুলি। তখন ম্যানেজার আইসা আমাকে শোরুম থেকে বের হয়ে যেতে বলে।
আমি কিছু বুঝে উঠতে না পেরে কি করবো না করবো কোনো কিছু না ভেবে চলে আসি।

শুধুমাত্র মসজিদে গিয়ে পবিত্র জুম্মার নামাজ পড়ার অপরাধে আমাকে কাজ ও শোরুম থেকে বের করে দেয়া হলো। চাকরি করি তাই বলে কি আমি আমার ধর্ম ও নামাজ আদায় করতে পারবোনা। নামাজ পড়তে মসজিদে গেছি এটাই কি আমার অপরাধ? নামাজ পড়া যদি অপরাধ হয়ে থাকে আর সেই অপরাধে যদি চাকুরিচ্যুত হতে হয় তাহলে আমি আমার আল্লাহ ও রাসুলের বিধান পালন করতে গিয়ে সেই চাকরি করবোনা।

বিদেশ যাওয়ার বিষয়ে খালেদা জিয়ার ভাগ্য নির্ধারণ আজ
নিজস্ব প্রতিবেদক : করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য বিদেশ যাওয়ার আবেদনের বিষয়ে আজ শনিবারের (৮ মে) মধ্যে মতামত জানিয়ে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।
শনিবার (৮ মে) মন্ত্রী নিজেই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
আনিসুল হক বলেন, আজকেই মতামত জানিয়ে রোববার (৯ মে) সকালে ফাইল পাঠানো হবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে।
এর আগে বেগম জিয়াকে বিদেশ নিতে গত বুধবার (৬ মে) রাত আটটায় আবেদন করে তার পরিবার। এরপর কেটে গেছে ৪৮ ঘণ্টা। এখনো সরকারের গ্রিন সিগন্যাল মেলেনি। এদিকে বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে তিনটায় আবেদনের কপি হাতে পাওয়ার পর আইনমন্ত্রী জানিয়েছেন, খুব শিগগিরই এ বিষয়ে তিনি মতামত দিবেন।
বিএনপিও তাকিয়ে সরকারের দিকে। আবেদনে লন্ডনে নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি উল্লেখ না করলেও সে দেশকেই অগ্রাধিকার দিচ্ছে তার পরিরবার। এছাড়া সিঙ্গাপুর হয়ে সৌদি আরব যাওয়ার কথাও শোনা যাচ্ছে। দেশগুলোর দূতাবাস, হাইকমিশনের সঙ্গেও যোগাযোগ করছেন তারা। বেগম জিয়ার নবায়নকৃত পাসপোর্ট ও সরকারের অনুমোদন পেলেই এ বিষয়ে আরও তৎপর হবে দল।
এদিকে আজ শনিবার (৮ মে) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এভারকেয়ার হাসপাতালের সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার ডা. আরিফ মাহমুদ জানান, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার অক্সিজেন অবস্থা ভালো আছে। আজ কোনো সমস্যা নেই। আগের চেয়ে তিনি ভালো আছেন। তিনি জানান, দুপুরের পর বসবে বেগম জিয়ার চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ড। এরপর তার শারীরিক অবস্থা ভালোভাবে জানা যাবে। যেহেতু তার করোনা-সংক্রান্ত জটিলতা রয়েছে এবং তা সহজে যাচ্ছে না, সেক্ষেত্রে অনেকটা স্থিতিশীল আছেন বেগম জিয়া।

বসুন্ধরার এমডির বিচার হবেনা জানাইয়া দিলেন পুলিশের আইজিপি ওবাদুল কাদের

আজ শুক্রবার এক অনুষ্ঠানে অবাদুলকাদের বলেন বসুন্ধরার এমডির বিচার করলে আমাদের দলের অর্থনৈতিক দুর্বল হয়ে যাবে এবং বাংলাদেশের সব টাকা বসুন্ধরা এমডির তাই এটা বিচার করা সম্ভব না এটা নিয়ে কেউই আর লেখালেখি করবেন না ফেসবুকে পোস্ট করবেন না ইউটিউবে ইউটিউবে করবেন না

এই সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে ওবাদুল কাদের বলেন বসুন্ধরা এমডিকে এটা কি একটু ভাইবা দেখেন কান্না পাইতাছে বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি কখনোই কাজ করতে পারে না এটা বিএনপি জামাতের গুজব তাই সবাইকে বলব এগুলো থেকে দূরে থাকবেন

এই সময় আরো উপস্থিত ছিলেন পুলিশের আইজিপি বেনজীর আহমেদ বেনজীর আহমেদ বলেন যে বসুন্ধরা এমডি সে বাংলাদেশের একজন অর্থের মালিক এবং প্রয়োজন হলে পুলিশকে টাকা দিয়ে সাহায্য করে তাই বলে আমরা ওর নামে মামলা প্রত্যাহার করে নিব এবং বিচার কিভাবে করব তোমার মাথার মধ্যে আসেনা নজির আহমেদ খেতে আরো বলেন বসুন্ধরা এর কোন বিচার হবে না মামলা প্রত্যাহার করা হবে এবং এটা নিয়ে রাজনীতি করবেন না

বেগম খালেদা জিয়ার জন্য জাইমা রহমান দোয়া চেয়েছেন দেশবাসীর কাছে

বিএনপি চায়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার ও দেশ দেশ নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার জন্য দোয়া চেয়েছেন বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের মেয়ে জাইমা রহমান তিনি আজ টুইটারে পোস্ট করে দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন

জাইমা রহমান আরও বলেন আমার কোনো ফেসবুক একাউন্ট ফেইসবুক পেইজ ফেসবুক গ্রুপ কোন কিছু নাই আমার নামে অনেকগুলা ফেক ফেসবুক গ্রুপ ফেক আইডি খুলছে তাই আমি কোন কিছু ঘটলে এটার জন্য দায়ভার নেব না কারন আমার নামে যেভাবে ফেসবুক পেইজ এবং গ্রুপ খুলে চালাচ্ছে বিএনপি’ নাম বলে এটার সাথে আমার কোন সম্পর্ক নেই

এইমাত্র পাওয়া বেগম খালেদা জিয়া কখন লন্ডন যাবেন জানিয়ে দিলেন মির্জা ফখরুল ইসলাম

বি এন পির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন আমাদের দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে আগামী শুক্রবার বিকালে লন্ডন না হবে ম্যাডামের সবার কাছে দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন এবং সুস্থ হয়ে দেশে ফিরে আসবেন আবার রাজনীতির মাঠে থাকবেন

এ সময় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন আমাদের নেত্রী ইনশাল্লাহ দেশের বাইরে যাবে সুস্থ হবে এবং ভালো থাকবে আমরা নেত্রী দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন এবং আমাদের পক্ষ থেকে সকলকে ধন্যবাদ জানাই যে আমাদের নেত্রীকে দেশের বাইরে যাওয়ার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য

মির্জা ফখরুল আরো বলেন বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার উন্নতি হলেও কিন্তু তাঁর অনেক জটিলতা আছে তাই আমরা দলের পক্ষ থেকে চিন্তা করছি ম্যাডামকে দেশের বাইরে নিলি আমাদের দেশনায়ক তারেক রহমানের স্ত্রী জোবায়দা রহমানের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা চলবে এবং আমাদের নেত্রী সুস্থ হবে

মির্জা ফখরুল আরো বলেন বেগম খালেদা জিয়া লন্ডন গেলে আমাদের তারেক রহমানের স্ত্রী জোবায়দা রহমান আন্ডারে ভালো মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হবে এবং দেশনেত্রীর চিকিৎসা চলবে অতি দ্রুত চিকিৎসা ও উন্নত হলে আমাদের নেত্রী বাংলাদেশে ফিরে আসবে

এ সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে ফখরুল বলেন আমাদের নেত্রী শুক্রবার অথবা শনিবার এ লন্ডনের উদ্দেশে রওনা হবেন তাই দেশবাসীর দোয়া করবেন এবং আমাদের নেতা কর্মীরা যারা আছেন সবাই নেত্রীর জন্য মিলাদ ও দোয়া মাহফিল আয়োজন করবেন ধন্যবাদ