ফিলিস্তিনি নারীকে ধর্ষণ করে গর্ব করা ইসরাইলি সেই সৈন্য নিহত

2666

ফিলিস্তিনিদের বি’রুদ্ধে সাম্প্রতিকতম সহিংসতায় ইসরাইলি প্র’তির’ক্ষা বা’হিনীর (আইডিএফ) প্রথম নি’হত হওয়া সৈ’ন্যটি এর আগে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক পোস্টে একজন ফিলিস্তিনি নারীকে ধ’র্ষণ করার বিষয়ে গর্ববোধ করেছিল।

বুধবার গাজা উপত্যকার কাছে এক অ্যান্টি-ট্যাঙ্ক ক্ষেপণাস্ত্র হা’মলা য় ওমর তাবিব (২১) নি’হত হয়েছেন বলে ডেইলি সাবাহ জা’নিয়েছে।

ইসরাইলি ক’র্তৃপক্ষ হামাসকে ওই হা’মলা র জন্য দায়ী করেছে যাতে তাবিব নি’হত হয় এবং আরও একজন সৈ’ন্য গু’রুতর আ’হত হয়। আরেকজন অফিসারও হালকা আঘা’তপ্রাপ্ত হন।

আইডিএফ তাবিবের মৃ’ত্যুসংবাদ প্র’চারের পর নেটিজেনরা তার স’স্পর্কে ইন্টারনেটে অনুসন্ধান শুরু করে। আর তখনই তাবিবের টুইটার একাউন্ট ঘেটে ভ’য়ংকর এক তথ্য পাওয়া যায়।

২০১৯ সালের আগস্টের আট তারিখে এক টুইটে তাবিব নিজেই জা’নান, তিনি একজন ফিলস্তিনি নারীকে ধ’র্ষণ ক’রেছেন। তাবিব এবং অন্য ইসরাইলি সে’নাদের মা’দকাসক্ত এবং শি’শু হ’ত্যাকারী বলে জনৈক ফিলিস্তিনপন্থী টুইটার ব্যবহারকারী আ’ক্রমণাত্মক পোস্ট করার পর তাবিব এমন মন্তব্য করেছিলেন।

বৃহস্পতিবার তাবিবকে উত্তর ইসরাইলে তার নিজ শহর ইলিয়াকিমে সমাধিস্থ করা হয় যেখানে মূলত ইয়েমেনি বংশোদ্ভূত ইহুদি অধিবাসীরা থাকেন। তার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় কয়েক শ স্থানীয় এবং আইডিএফ ক’র্মী অংশ নেন। আর মাত্র কয়েক সপ্তাহ পরই তাবিবের অবসরে যাওয়ার কথা ছিল।

চ্যানেল উগান্ডা