ইসরায়েলকে সমর্থন দিলেই ১০ বছর কারাদণ্ড: কুয়েত

457

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম কিংবা বাস্তব জীবনে ইসরায়েলকে সমরত্রন জানালে ১০ বছর কারাদণ্ড ও পাঁচ হাজার দিরহা’ম জরিমানার ঘোষণা দিয়েছে কুয়েতি সরকার।আর্ন্তজাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বিনোয়োগ ব্যাংকার-উদ্যোক্তা ও ক্যাপিটল মার্কেটের উপদেষ্টা মীর মোহাম্মদ আলী খানের একটি টুইট পোস্টের বরাতে এমন খবর দিয়েছে পাকিস্তানি গণমাধ্যম এমএমএননিউজ টিভি।

আজ বুধবার (১৯ মে) কুয়েত সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি এই পোস্ট দিয়েছেন। মীর মোহাম্মদ আলী বলেন, কুয়েত সরকারকে অভিবাদন। দেশটি একটি আইন জারি করেছে,যাতে কেউ সামাজিকমাধ্যম ও বাস্তবজীবনে ইসরায়েলকে সমরত্রন করলে ১০ বছরের কারাদণ্ড ও পাঁচ হাজার দিরহাম জরিমানার মুখে পড়বে। এর আগে, ফিলিস্তিনি নাগরিকদের বৈধ অধিকারের সমর্থন নিজের দৃঢ় অবস্থান ব্যক্ত করেছেন কুয়েতের প্রধানমন্ত্রী সাবাহ খালেদ আল-হামাদ আল-সাবাহ।

কুয়েত সরকার বলেন ইসলাম এর বিপক্ষে যারা কথা বলবে তাদের জরিমানা সহ জেল গ্রহন করতে হবে। ইসলামের জয় হবেই। যারা ইসলামকে থামানোর চেষ্টা করবে তাদের কে কঠিন শাস্তির সমুখে হতে হবে।

কুয়েত সরকার এই খবর টি তাদের গণমাধ্যমে প্রচার করেন। সরকারি ওয়েবসাইট,টুইটারে,ঘোষনা দেন।আমার দেশের মানুষ যদি ইসরাইলের সাপোর্ট করে তাদের কে জেলে রাখা হবে এবং জরিমানা করা হবে। ইসলামের জয় সবসময় ছিলো আছে এবং থাকবে ইনশাআল্লাহ।

ইসলাম শান্তির ধর্ম ইসলামের জয় সবসময় কয়েত এর সরকার মানুষের উপর এমন নির্যাতন মেনে নিতে না পেরে বান্ধ হয়ে এমন কথা বলেন বলে জানা গেছে।তাদের কে সমার্থন জানিয়েছেন অনেক দেশ। ধন্যবাদ জানান কুয়েত সরকার কে।

চ্যানেল উগান্ডা

কয়েত প্রতিবেদন ডন