বিদ্রোহী প্রার্থীসহ ১৪ নেতাকে আ’লীগ থেকে বহিষ্কার!

86

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মাহমুদুল হক ভূঁইয়াসহ ১৪ নেতাকর্মীকে দল থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। তাদের স্থায়ীভাবে দলের সব পদ থেকে বহিষ্কারের জন্য কেন্দ্রে সুপারিশও পাঠিয়েছে জেলা আওয়ামী লীগ।

বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে প্রচারে অংশগ্রহণকারী দলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার স্বাক্ষরিত একটি জরুরি চিঠি রোববার কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের কাছে পাঠানো হয়।

চিঠি সূত্রে জানা যায়, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী বর্তমান মেয়র নায়ার কবীরের মনোনয়ন প্রত্যাখ্যান করে মেয়র পদে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মাহমুদুল হক ভূঁইয়া।

বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে ও তার সমর্থনে জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য আজিজুর রহমান, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক আলী আকবর, জেলা কৃষক লীগ সাধারণ সম্পাদক ফরিদ উদ্দিন, পৌর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা আবু সিদ্দিক, শাহজাহান মিয়া, জেলা কৃষক লীগ সহ-সভাপতি জাকির হোসেন, প্রচার সম্পাদক সারোয়ার আলম, সদস্য আবুল কালাম, জেলা যুবলীগের সহপ্রচার সম্পাদক শেখ শওকত হোসেন,

ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদ রানা, যুবলীগ নেতা আল-আমিন দুলাল, গাজিউর রহমান ও আমিনুল ইসলাম বিদ্রোহী প্রার্থী মাহমুদুল হক ভূঁইয়ার পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ করেছেন। তারা দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে শৃঙ্খলা ভঙ্গ করেছেন।

তাই স্থানীয় আওয়ামী লীগের সব পদ থেকে তাদের বহিষ্কার করা হয়েছে বলে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়। চিঠিতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সিদ্ধান্ত ও সাংগঠনিক শৃঙ্খলা রক্ষার বৃহত্তর প্রয়োজনে উল্লেখিত নেতাকর্মীদের দলীয় সাংগঠনিক পদ ও প্রাথমিক সদস্যপদ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের অনুরোধ করা হয়।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার সাংবাদিকদের বলেন, তারা দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে শৃঙ্খলা ভঙ্গ করেছেন। তাই তাদের স্থানীয়ভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। সাংগঠনিক পদ ও প্রাথমিক সদস্য পদ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের জন্য কেন্দ্রে সুপারিশ করা হয়েছে।