খালেদা জিয়ার বি’রু’দ্ধে গ্রে’প্তা’রি পরোয়ানা প্রত্যাহারের দাবিতে রাজধানীতে ম’শাল মিছিল

190

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বি’রুদ্ধে গ্রে’ফতারি পরোয়ানা জারির প্র’তিবাদে রাজধানীতে ফের মশাল মিছিল করা হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় মিছিলটি কাকরাইল মোড় থেকে শুরু হয়ে শান্তিনগর মোড়ে গিয়ে শেষ হয়। এতে নেতৃত্ব দেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাস’চিব রুহুল কবির রিজভী।

নারায়ণগঞ্জ জে’লা ছাত্রদলের উদ্যোগে মিছিলে আরও অংশ নেন- নারায়ণগঞ্জ জে’লা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ও সাবেক সহ-সভাপতি মাহমুদুর রহমান সুমন, ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও নারায়ণগঞ্জ জে’লার সভাপতি মশিউর রহমান রনি, ফতুল্লা থানার সভাপতি মেহেদী হাসান, জে’লা যুবদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহীন আহমেদ, ছাত্রদলের ঢাকা মহানগর পূর্বের যুগ্ম সম্পাদক জাবেদ ইকবালসহ বিএনপির অ’ঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

মিছিল থেকে নেতাকর্মীরা খালেদা জিয়ার বি’রুদ্ধে গ্রে’ফতারি পরোয়ানা প্রত্যাহারের দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দেন। একইস’ঙ্গে অবিলম্বে আ’টক নেতাকর্মীদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান।

প্রস’ঙ্গত, গত বুধবার বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের বি’রুদ্ধে গ্রে’ফতারি পরোয়ানা জারি করেন নড়াইলের একটি আ’দালত। মানহানির দুটি পৃথক মা’মলায় তাদের বি’রুদ্ধে গ্রে’ফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়।

কাদের মির্জার বি’রু’দ্ধে আইনগত ব্যবস্থার দাবি আ.লীগের
সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই বসুরহাট পৌর মেয়র আবদুল কাদের মির্জার বি’রু’দ্ধে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অ’ভিযোগ এনে নোয়াখালীতে সংবাদ সম্মেলন হয়েছে।শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টায় নোয়াখালী সদর উপজে’লা ও পৌর আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ দলের অংগ সংগঠনের ব্যানারে জে’লা আ.লীগ কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নোয়াখালী শহর আ.লীগের সভাপতি আবদুল ওয়াদুদ পিন্টু। এছাড়া বক্তব্য রাখেন সদর উপজে’লা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জে’লা আ.লীগ নেতা সামছুদ্দিন জেহান, সদর উপজে’লা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আতাউর রহমান নাছের, জে’লা যুবলীগ আহ্বায়ক ইমন ভট্ট, যুগ্ম আহ্বায়ক একরামুল হক বিপ্লব, জে’লা ছাত্রলীগ সভাপতি আসাদুজ্জামান আরমানসহ অনেকে।

নেতাকর্মীরা বলেন, আবদুল কাদের মির্জা দলীয় নেতাকর্মীদের বি’রু’দ্ধে অ’পরাজনীতির অ’ভিযোগ করে, আর নিজেই অ’পরাজনীতিসহ নানা অনিয়ম করে বেড়াচ্ছে। তিনি দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে দলীয় প্রধান তথা সরকার প্রধান শেখ হাসিনা, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, জে’লা সভাপতি-সেক্রেটারিসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মী ও সাংসদদের বি’রু’দ্ধে নিয়মিত অশোভন আচরণ করে যাচ্ছেন।

বিএনপি-জামায়াতের মতো রাষ্ট্রযন্ত্রের তথা প্রশাসনের কর্মক’র্তাদের বি’রু’দ্ধে নানা মিথ্যা অ’ভিযোগ করছেন। যা দলীয় শৃঙ্খলা ও রাষ্ট্র বিরোধীও। এমন অবস্থায় নেতাকর্মীরা আবদুল কাদের মির্জার বি’রু’দ্ধে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে সাংগঠনিক ব্যবস্থা ও আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।

এদিকে ডিসি, এসপি ও কোম্পানীগঞ্জ থা’নার ওসিকে প্রত্যাহার এবং কোম্পানীগঞ্জ উপজে’লা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও উপজে’লা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলসহ বেশ কিছু নেতাকর্মীদের গ্রে’প্তা’রের দাবিতে থা’নার সামনে অবস্থান ধ’র্মঘট করেছে আবদুল কাদের মির্জা। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত এ অবস্থান ধ’র্মঘট চলে। এসময় তিনি বলেন, তার দাবি না মানা পর্যন্ত এ অবস্থান ধ’র্মঘট চলবে।