আসো খেলা হবে আমি বলছিলাম তোমরা এই এটাকে নিয়ে রাজনীতি করছো এখন প্রমাণিত শামীম ওসমান

506

শামীম ওসমানের একটি জনপ্রিয় বক্তব্য ‘আসো খেলা হবে’। এই জনপ্রিয় বক্তব্যটি দেশের গণ্ডি পেরিয়ে এখন ভারতের ভোটের সুপারহিট স্লোগানে রূপ নিয়েছে। তার প্রমাণ হিসেবে এবার ভারতের বাজারের টি-শার্টে লেখা উঠেছে ‘খেলা হবে’।বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনের একটি প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।
ভারতের পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যে ভোটের উত্তাপ বাড়ছে। এর মধ্যেই ‘খেলা হবে’ স্লোগানটি বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে সবার কাছে। রাজনীতির ময়দান এবং অরাজনৈতিক ময়দান সব জায়গায় সকলেই বলছে, ‘খেলা হবে’। এবার সেই ‘খেলা হবে’ স্লোগান ঢুকে পড়েছে ভারতের ফ্যাশন জগতেও। দেশটির পূর্ব বর্ধমান জেলার কাটোয়া শহরে বিক্রি হচ্ছে ‘খেলা হবে’ লেখা টি শার্ট।রাজনৈতিক লড়াইয়ের ময়দানে দলগুলো ভোটপ্রচারের অস্ত্র হিসাবে প্রতিবছর নতুন-নতুন কৌশল নিয়ে থাকে। সেই সঙ্গে দেওয়াল লিখনেও থাকে নানা চমক। কোন রাজনৈতিক দল দেওয়াল লিখনে কী চমক দিবে তার দিকে তাকিয়ে থাকে আমজনতা।
তবে এ বছর ভোটপ্রচারে ‘খেলা হবে’ স্লোগানটি বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। আর তাই তো ‘খেলা হবে’ স্লোগানকে ব্যবসার হাতিয়ার করছেন ভারতের পোশাক ব্যবসায়ীরা। তার অংশ হিসেবে কাটোয়া শহরে ‘খেলা হবে’ প্রিন্টের টি শার্ট কেনার হিড়িক পড়েছে নতুন প্রজন্মের ক্রেতাদের মধ্যে।
কাটোয়া শহরের পানুহাটের পোশাক ব্যবসায়ী রিপন দেবনাথ ভারতীয় গণমাধ্যমকে বলেন, ‘বাজারে যখন যেটা বেশি চলে সেটাকে ডিজাইনের মধ্যে তুলে ধরার চেষ্টা করি। এতে তরুণদের কাছে বিষয়টি আকর্ষিত হয়। তাই এবার ‘খেলা হবে’ এই স্লোগানটি বেছে নেওয়া হয়েছে। কারণ, সম্প্রতি ‘খেলা হবে’ শব্দটি ব্যপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে।’
রিপন আরও জানান, ইতোমধ্যেই এই টি-শার্টের জন্য অনলাইনে প্রচুর অর্ডার আসছে। কাটোয়া ছাড়াও অন্যান্য শহর থেকেও এই টি শার্টের অর্ডার দিচ্ছেন বিক্রেতারা। ব্যবসায়ীরা আশা করছেন এই ভোটের মৌসুমে ‘খেলা হবে’ টি-শার্টের চাহিদা আরও বাড়বে। ২০০-৩০০ টাকা খরচ করলেই পাওয়া যাচ্ছে এই টি-শার্টটি।
উল্লেখ্য, প্রায় পাঁচ বছর আগে নারায়ণগঞ্জের একটি জনসভায় একটি ডেডলাইনকে সামনে রেখে শামীম ওসমান বলছিলেন, ‘২৪ তারিখের পরে আসো খেলব, খেলা হবে।’ তারপর এই ‘খেলা হবে’ সংলাপটি দেশের সোশ্যাল মিডিয়ার ট্রেন্ড হয়ে যায়।