ক্রিকেটার নাসিরের দম্পতির জন্য দোয়া করছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

835

ক্রিকেটার নাসিরের দম্পতির জন্য দোয়া করছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা দোয়া করছেন ক্রিকেটার নাসির ও তার ওয়াইফ তামান্নার জন্য ফেসবুকে এটা নিয়ে অনেক ভাইরাল হইছে এক ভক্ত পোস্ট করছেন যে আমাদের মাননীয় শেখ হাসিনাঃ নাসিরের জন্য দুই হাত তুলে দোয়া করছেন তিনি আরো আরো লিখছেন যে আমাদের বাংলাদেশের মতন একটা জননেত্রী শেখ হাসিনা সাধারণত একজন ক্রিকেটারের জন্য দোয়া করছেন এরকম নেত্রী কার দেশ হয় কে লেখছে যে আমি এরকম নেত্রীর কর্মী হয়ে আমি অনেক খুশি অনেক হ্যাপি আমার নেত্রীর জন্য সবাই দোয়া করবেন জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু ফানি এই নিউজটি শুধুমাত্র পাঠকদের বিনোদন দেওয়ার জন্য লেখা হয়েছে। জাতীয় দলের আলোচিত ক্রিকেটার নাসির হোসেন রোববার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বিয়ে করেছেন। বিয়ের পর তার স্ত্রী তামিমাকে নিয়ে বের হয়ে আসছে নানা চাঞ্চল্যকর ত’থ্য।

জানা গেছে, রাকিব ছাড়াও নাসিরের স্ত্রী তামিমার আরও একজন স্বা’মী ছিল বলে জানা গেছে শনিবার (২০ জানুয়ারি) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পাওয়া তামিমার সাবেক স্বা’মী রাকিবের একটি জি’ডির কপিতে এ ত’থ্য পাওয়া গেছে। তিনি বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) রাতে উত্তরা পশ্চিম থানায় এ জি’ডিটি করেন বলে নিশ্চিত করেছেন উত্তরা পশ্চিম থানার ভারপ্রা’প্ত কর্মকর্তাও (ওসি) শাহ মো. আক্তারুজ্জামান ইলিয়াস।

জি’ডি সূত্রে জানা যায়, ২০১১ সালে তামিমা তাম্মিকে বিয়ে করেন রাকিব। দাম্পত্য জীবনে তাদের একটি মে’য়ে রয়েছে। এর মধ্যেই তামিমা অন্য এক ছেলের স’ঙ্গে সম্প’র্কে জড়ায়।

ছয় মাস সংসার করার পর ফিরে আসে। পরে রাকিবের স’ঙ্গে ক্ষমা চেয়ে পার পায়। কিন্তু গত ১৪ ফেব্রুয়ারি নতুন করে নাসিরের স’ঙ্গে ছবি ভাইরাল হলে রাকিব জানতে পারেন, তামিমা বিয়ে করেছেন।এই ঘ’টনায় ফেইসবুকে তুমুল আলোচনা ও সমালোচনা চলছে। ঘ’টনার পরেই নাসির হোসেন গা ঢাকা দিয়েছেন।তবে এই ঘ’টনার বিস্তারিত বি’ষয়ে আলজাজিরার বিস্তারিত রিপোর্ট চান তার সাবেক প্রে’মিকারা।

আল জাজিরাকে অনুরোধ করেছেন নাসিরকে নিয়ে যেন ‘উঈ আর নাসির’স গার্লফ্রেন্ড’ নামে একটি ডকুমেন্টারি বানানোর জন্যে।যাবতীয় ত’থ্যপ্রমাণ দিয়ে তারা সহয়তা দিবেন বলে আসস্ত করেছেন তারা।আলজাজিরার সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা ব্যাস্ত আছি বলে আমাদের মেইল ব্লক করে দেন।

নাসিরের স্ত্রী’ তামিমা’র তালাকনামা প্রকাশ
সম্প্রতি বিয়ে করেছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটার নাসির হোসেন। আর এ বিয়ে নিয়ে সৃষ্ট বিতর্ক ইস্যুতে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে উদ্ভুত পরিস্থিতিতে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত জানান তিনি। এ সময় গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে প্রমাণ স্বরূপ নাসিরের স্ত্রী’ তামিমা সুলতানা প্রথম বিয়ের তালাকের কাগজ প্রকাশ করেন।

বিতর্ক ইস্যু নিয়ে বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) বনানীতে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে ক্রিকেটার নাসির। সেখানেই এই তালাকনামা প্রকাশ করা হয়।সংবাদ সম্মেলনে নাসির ও তামিমা দাবি করেন, তারা দেশের আইন ও ধ’র্মীয় বিধান মেনে বিয়ে করেছেন। রাকিবের সঙ্গে তামিমা’র বৈবাহিক স’ম্প’র্ক শেষ হয়েছে প্রায় পাঁচ বছর আগে। ২০১৬ সালে তামিমা ডিভোর্সের আবেদন করেন এবং ২০১৭ সালে ডিভোর্স হয়।

সংবাদ সম্মেলনে নাসির বলেন, এতদিন ও শুধু তামিমা ছিল, আজকে থেকে তামিমা হোসেন। আমি চাইব না কেউ কোনোভাবে ওর বি’রু’দ্ধে কিছু বলুক। যারাই যেখান থেকে কিছু বলবে আমি আইনগত ব্যবস্থা নেবো।এর আগে বুধবার ক্রিকেটার নাসির হোসেন ও স্ত্রী’ তামিমা সুলতানা তাম্মির বি’রু’দ্ধে মা’ম’লা করেন স্বামী মো. রাকিব হাসান। মা’ম’লায় আগের বিয়ে গো’প’ন রেখে নতুন বিয়ে, অন্যের স্ত্রী’কে প্রলুব্ধ করে নিয়ে যাওয়া, ব্যাভিচার ও মানহানির অ’ভিযোগ আনা হয়েছে।

ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্ম’দ জসিমের আ’দা’লতে রাকিব হাসান এ মা’ম’লা করেন।রাকিবের আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান বলেন, মা’ম’লায় তামিমা সুলতানা তাম্মিকে এক নম্বর ও ক্রিকেটার নাসির হোসেনকে দুই নম্বর আ’সা’মি করা হয়েছে। দ’ণ্ডবিধি ১৮৬০ এর ৪৯৪, ৪৯৭, ৪৯৮, ৫০০ এবং ৩৪ ধারায় এ মা’ম’লা করা হয়েছে।

মা’ম’লার এজাহারে বলা হয়েছে, ২০১১ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি বাদীর সঙ্গে ১ নম্বর আ’সা’মি তামিমা সুলতানার ই’স’লা’মী শরীয়ত মোতাবেক ৩,০০,০০১ (তিন লক্ষ এক) টাকা দেনমোহর ধার্যে বিবাহ সম্পন্ন হয় এবং রেজিস্ট্রি হয়। বিয়ের পর থেকে বাদী ও ১ নম্বর আ’সা’মি স্বামী-স্ত্রী’ হিসেবে সংসার করতে থাকেন। দাম্পত্য জীবনে তাদের সংসারে বাদীর ঔরসে ১নং আ’সা’মির গর্ভে একজন কন্যা সন্তানের জন্ম হয়, যার নাম রাখা হয় তোবা হাসান। বয়স-৮ বছর। ১ নম্বর আ’সা’মি (তাম্মি) পেশায় একজন কেবিন ক্রু। তিনি সৌদি এয়ারলাইন্সে কর্ম’রত। চাকরির সুবাদে তিনি গত ১০ মা’র্চ সৌদিতে গিয়েছিলেন। ক’রো’না মহামা’রির কারণে জরুরি অবস্থা সৃষ্টি হলে সেখানেই অবস্থান করতে থাকেন।

উল্লেখ্য, গেল ১৪ ফেব্রুয়ারি বিয়ে করেছেন ক্রিকেটার নাসির হোসেন। বিয়েকে স্ম’রণীয় করতে ভালোবাসা দিবসটিকেই বেছে নেন তিনি। কিন্তু বিয়ের সপ্তাহ পার না হতেই চরম বিতর্ক শুরু হয়েছে।শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) নাসিরের স্ত্রী’কে নিয়ে বি’স্ফো’রক তথ্য বেরিয়ে আসে। সকাল থেকে সামাজিকমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে তামিমা’র আরেক স্বামী ও সন্তানের ছবি। রাকিব নামে ওই স্বামীর সঙ্গে তার বিয়ে হয় ১১ বছর আগে। সেই ঘরে কন্যা সন্তানের বয়স এখন নয় বছর।

নাসিরের সঙ্গে বিয়ের ভিডিও ও খবর ছড়িয়ে পড়ার পর বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) রাতে উত্তরা পশ্চিম থা’নায় এ জিডিটি করেন বলে নিশ্চিত করেন উত্তরা পশ্চিম থা’নার ভা’রপ্রাপ্ত কর্মক’র্তাও (ওসি) শাহ মো. আক্তারুজ্জামান ইলিয়াস।জিডিতে রাকিব উল্লেখ করেন, তামিমা’র সঙ্গে এখনো তার ডিভোর্স হয়নি। ডিভোর্স ছাড়া স্ত্রী’ কিভাবে অন্যের সঙ্গে বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হন সেই প্রশ্ন তার। এজন্য স্ত্রী’র বি’রু’দ্ধে জিডি করেছেন তিনি।

পরে জিডির কপি ও তাদের বিয়ের কাবিননামা’ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। জিডিতে রাকিব অ’ভিযোগ করেছেন, তার সঙ্গে সংসার করা অবস্থায় তামিমা গো’প’নে আরেকজনকে বিয়ে করেন। সেখানে ছয়মাস সংসারও করেন।জিডি সূত্রে আরও জানা যায়, তামিমা ছয় মাস যে ছে’লের সঙ্গে সংসার করেছেন ওই ছে’লের নাম অলক। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাই’রাল হওয়া একটি অডিও ক্লিপে এই ছে’লের বিষয়েই নাসির ও রাকিবের মধ্যে কথোপকথনও শোনা যায়।

শনিবার রাকিব তামিমা ও তার স’ম্প’র্কের নানা বিষয়ে কথা বলেছেন গণমাধ্যমের সঙ্গে। সেখানে তিনি জানিয়েছেন, তামিমাকে তিনি দুবার বিয়ে করেছেন। অর্থাৎ তামিমা’র জীবনে তিন স্বামী (নাসির হোসেন, অলোক ও রাকিব) এলেও বিয়ে করেছেন চারবার।

রাকিব বলেন, ‘প্রে’ম করে বিয়ে করেছিলাম। সে আসলে আমাকে চাপ দিয়েই বিয়ে করেছিল। প্রথমে আম’রা টাঙ্গাইলে কোর্ট ম্যারেজ করেছিলাম। পরে আম’রা বিয়ে করি বরিশালে। আমা’র বউকেই দুবার বিয়ে করেছি। এরপর সংসার শুরু করি।এদিকে রাকিব ও নাসিরের ফোন রেকর্ড ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। সেখানে রাকিবকে ফোন করে জিডি করার ব্যাপারটি ধামাচাপা দিতে বলেন নাসির।

কথোপথনে রাকিবের প্রশ্ন ছিল, আপনি কি তামিমা স’ম্প’র্ক সব কিছু জানেন? উত্তরে নাসির হোসেন বলেন, তার সব কিছু জেনেশুনেই আমি তাকে বিয়ে করেছি। তার বাচ্চা আছে, তার আগেও বয়ফ্রেন্ড ছিল সবকিছুই আমি জানি। আপনার বৌ আপনার সাথে ভালো থাকলে নিশ্চয়ই আপনার ১১ বছরের সংসার ভে’ঙে আমা’র কাছে চলে আসতো না।রাকিব হাসান ও তামিমা’র কাবিননামায় দেখা যায় ২০১১ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি তিন লাখ টাকা দেনমোহরে তাদের বিয়ে হয়। রাকিবের দাবি, গেল ১১ বছরে তার স্ত্রী’র পড়াশোনা থেকে শুরু করে জব সবক্ষেত্রেই তিনি সাহায্য করেছেন।