পরিকল্পিত হত্যা নাকি আত্মহত্যা!

95

দেবিদ্বার উপজেলার ধামতী উত্তরপাড়া মাজার মার্কেট সংলগ্ন এলাকায় এক তরুণীর মৃত্যু নিয়ে মানুষের মধ্যে তৈরি হয়েছে নানা গুঞ্জন

দেবিদ্বার উপজেলার ধামতী উত্তরপাড়া মৃত সুন্দর আলীর চতুর্থ মেয়ে স্বর্ণা আক্তারের সাথে একই এলাকার আব্দুর রহিম মাস্টারের ছেলে মো‌: কামরুল হাসান প্রেমে আবদ্ধ হয়ে গত ২০- ০৪-২১ তারিখে কুমিল্লায় কোর্ট ম্যারেজের মাধ্যমে বিয়ে হয়।

ছেলের পরিবার বিয়ে না মানায় স্বামী কামরুল বউকে নিয়ে শ্বশুর বাড়িতে অবস্থান করে।

স্বামী কামরুল হাসান জানায়,আমি স্বর্ণাকে পছন্দ করেই বিয়ে করেছি। এটা আমার পরিবার মেনে নেয় নাই। তাই আমি আমার বউকে নিয়ে শ্বশুরবাড়িতে অবস্থান করতেছিলাম।

কামরুল বলেন,গতকাল আমার বউ স্বর্ণাকে শশুর বাড়িতে রেখে ভায়রার বাসায় বেড়াতে গিয়েছি।রাত বারোটা পর্যন্ত আমার বউয়ের সাথে আমার মুঠোফোনে দুই ঘন্টা যাবৎ কথা হয়।

হঠাৎ আমার বউয়ের মোবাইল বন্ধ পাই।
আমি মনে করেছি মোবাইলে চার্জ নাই।

সেহরির পরে খবর পাই ‌,আমার বউ ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে ।আমি ও আমার বউয়ের মধ্যে কোন ঝগড়া-বিভেদ সৃষ্টি হয় নাই।

এটা আত্মহত্যা নাকি পরিকল্পিত হত্যা এটার আমি সঠিক তদন্ত চাই।